সর্বশেষ লেখাসমূহ:
আমি শিশুদের দেখে মুগ্ধ : আনন শিশুসাহিত্য আসরে আনোয়ারা সৈয়দ হক

আমি শিশুদের দেখে মুগ্ধ : আনন শিশুসাহিত্য আসরে আনোয়ারা সৈয়দ হক

Print Friendly, PDF & Email

তুষারধারা রিপোর্ট:
আনন ফাউন্ডেশন আয়োজিত আনন শিশুসাহিত্য আসর-এর ২৫তম আসর ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ শুক্রবার বিকাল ৫টায় আনন সেন্টার, ২৫১৬ পূর্ব ভাটারা, নতুন বাজার, গুলশান-২, ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ফাউন্ডেশনের সভাপতি স.ম. শামসুল আলম। লেখক, শিশু-কিশোরসহ অনেক সাহিত্যপ্রিয় ব্যক্তির উপস্থিতে মিলনায়তন পরিপূর্ণ এই আসরে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক ও শিশুসাহিত্যিক আনোয়ারা সৈয়দ হক। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট কবি ফারুক মাহমুদ।

আসরের শুরুতে ফাউন্ডেশনের ছোট্টবন্ধু বর্ষা রায় ভাষার গান পরিবেশন করে। স্বরচিত লেখা পাঠের মাধ্যমে অন্য লেখক, শিশু-কিশোর এবং শ্রোতাদের আকর্ষণ করেন সিরাজুল ফরিদ, মাহমুদউল্লাহ, এনায়েত রসুল, আশরাফুল মান্নান, দীপু মাহমুদ, শাহানারা রশীদ ঝরনা, আবিদ করিম মুন্না, মনিরুজ্জামান পলাশ, চন্দনকৃষ্ণ পাল, মোহাম্মদ রবিউল হোসেন, রুবেল হাবিব, মালেক মাহমুদ, সব্যসাচী পাহাড়ী, গোলাম নবী পান্না, ইউসুফ আরেফিন মাসুদ, কামাল হোসাইন, আমিনুল ইসলাম মামুন, আহমাদ স্বাধীন, আহমেদ জাকির, মাহমুদ মোস্তফা, শাহজাহান মোহাম্মদ, নূর মোহাম্মদ দীন, জাহিদ জাবের, মো. আওয়াল হোসেন, সাজ্জাদ বাবু, আশা রহিম, মো: সজীব মিয়া, মো. মনির হোসেন প্রমুখ। শিশুদের মধ্য থেকে যারা লেখা পাঠে অংশ নেয় তারা হল- সজিবুর রহমান সৌরভ, আবির হাসান শাওন, আদৃতি সরকার অনু, মাজনীন রহমান মাইশা, সাফিয়া জান্নাত, সামিয়া আক্তার মিম ও অপর্না।

আনন ফাউন্ডেশনের ছোট্ট বন্ধু অর্নব চৌধুরী ও সাব্বির হোসেন আনোয়ারা সৈয়দ হক এর লেখা গল্প পাঠ করে শোনায়। ফারুক মাহমুদ এর ছড়া আবৃত্তি করে নাদিয়া জান্নাত নিঝুম।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির ভাষণে ফারুক মাহমুদ বলেন, আমি এর আগে কখনো আনন ফাউন্ডেশনের সাহিত্য আসরে আসিনি কিন্তু আজকের অনুষ্ঠানে এসে আমি আপ্লুত, অভিভূত। আমি আনন্দিত আনন ফাউন্ডেশনের শিশুদের উত্তরণ দেখে। আমি মনে করি আনন ফাউন্ডেশন যদি এভাবে এগিয়ে যায়, তবে একদিন এই শিশুদের মধ্য থেকে বেরিয়ে আসবে অনেক প্রতিশ্রুতিশীল লেখক। তিনি নিজের একটি ছড়া আবৃত্তির মধ্য দিয়ে তার বক্তব্যের ইতি টানেন।

আনোয়ারা সৈয়দ হক প্রধান অতিথির ভাষণে বলেন, শিশুদের জন্য কাজ করছে আনন ফাউন্ডেশন। আমি শিশুদের দেখে মুগ্ধ। আনন ফাউন্ডেশনে আজ আমি প্রথম আসলাম। আমি না আসলে বুঝতে পারতাম না আমাদের এই শহরে শিশুদের বিকাশে এমন একটি সুন্দর শিশুসংগঠন আছে, যারা নিরলসভাবে শিশু ও শিশুসাহিত্য নিয়ে কাজ করছে। অনেকদিন শিশুদের কলকাকলিতে মুখরিত এরকম অনুষ্ঠানে আমি যাইনি। অবশ্য এটা দেখে ভালো লাগছে যে আনন ফাউন্ডেশনের কর্ণধার স.ম. শামসুল আলম এবং আমি একসময় শিশুসংগঠন কচি-কাঁচার মেলা করতাম। আজ রোকনুজ্জামান খান দাদাভাইয়ের কথা খুব মনে পড়ছে। দাদাভাই একটি কথা খুব করে বলতেন, কচি-কাঁচার মেলার কোন সদস্য অন্যায় পথে যায়নি। আমি আশা করছি আনন ফাউন্ডেশনের শিশুরাও ভালো পথে চলবে, দেশকে ভালোবাসবে। তারা দেশের মঙ্গলের জন্য কাজ করবে।


সভাপতির বক্তব্যে শিশুসাহিত্যিক স.ম. শামসুল আলম বলেন, আনন ফাউন্ডেশন শিশুসাহিত্যিকদের শিশুসাহিত্যে বিশেষ অবদানের জন্য শিশুসাহিত্য পুরস্কার দিচ্ছে। এই প্রজম্মের তরুণ শিশুসাহিত্যিকদের মধ্যেও অনেকে ভালো লিখছে, তাদেরকেও আনন ফাউন্ডেশন মূল্যায়ন করতে আগ্রহী। আমরা ‘আনন তরুণ শিশুসাহিত্য পুরস্কার’ প্রদানের কথা ভাবছি।
তিনি সকলের সহযোগিতা কামনার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।
ছোট্টবন্ধু সুখি আক্তার সাথী শিশুসাহিত্য আসরটি উপস্থাপনা করে।

সর্বমোট পঠিত: 128

সর্বশেষ সম্পাদনা: সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৮ at ৯:৫৩ পূর্বাহ্ণ

প্রিজম আইটি: ওয়েবসাইট ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট-এর জন্য যোগাযোগ করুন- ০১৬৭৩৬৩৬৭৫৭