সর্বশেষ লেখাসমূহ:
আনন ফাউন্ডেশন-এর ২৬তম শিশুসাহিত্য আসর অনুষ্ঠিত

আনন ফাউন্ডেশন-এর ২৬তম শিশুসাহিত্য আসর অনুষ্ঠিত

Print Friendly, PDF & Email

তুষারধারা রিপোর্ট:
আনন ফাউন্ডেশন আয়োজিত আনন শিশুসাহিত্য আসর-এর ২৬তম আসর গত ২৫ জানুয়ারি ২০১৯ শুক্রবার বিকাল ৫টায় আনন সেন্টার, ২৫১৬ পূর্ব ভাটারা, নতুন বাজার, গুলশান-২ ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ফাউন্ডেশনের সভাপতি স.ম. শামসুল আলম। বর্ণাঢ্য এই আসরে প্রধান অতিথি হিসেবে বিশিষ্ট শিশুসাহিত্যিক ও বিজ্ঞান লেখক সুব্রত বড়ুয়া এবং বিশিষ্ট শিশুসাহিত্যিক ও পাখি বিশেষজ্ঞ শরীফ খান বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আনন শিশুসাহিত্য পুরস্কার প্রাপ্ত এবং ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা বিশিষ্ট শিশুসাহিত্যিক সুজন বডুয়া।

স.ম. শামসুল আলম-এর লেখা গান পরিবেশনের মধ্য দিয়ে আসর শুরু হয়। গান পরিবেশন করে আনন ফাউন্ডেশনের শিশুরা। স্বরচিত লেখা পাঠ করেন হাসনাত আমজাদ, ইফতেখার শিবলী, মনিরুজ্জামান পলাশ, গোলাম নবী পান্না, মালেক মাহমুদ, অদ্বৈত মারুত, আমিনুল ইসলাম মামুন, মাহবুব লাভলু, আহমাদ স্বাধীন, আহমেদ জাকির, সাজ্জাদ বাবু, নূর মোহাম্মদ দীন, মো: সজীব মিয়া, মো. মনির হোসেন প্রমুখ।
শিশুদের মধ্যে যারা লেখা পাঠে অংশ নেয় তারা হলো- আফরিন বাশার, আসমা আক্তার, নাদিয়া জান্নাত নিঝুম, মিসকাতুল মুনতাহা ঐশী, তনিমা জামান মিম, আবির হাসান শাওন, তানজিম রহমান, লিজা আক্তার, আবদুল্লাহ আল মামুন, আবদুল্লাহ আল নোমান, তানবিন সুলতানা জয়া, মো. হাসিবুর রহমান অয়ন, মরিয়ম আক্তার আফসানা, শ্রেয়া দিত্ত ঋদ্ধি, সাদিয়া আক্তার, সজিবুর রহমান সৌরভ, সুরাইয়া আক্তার তিন্নি, মো. মোস্তাকিম ইসলাম, আফিয়া ইসলাম, মেহেরুন নেছা, মাহাদি হোসাইন, হিমেল মোস্তাকিম, মিম ভূঁইয়া, শ্রুতি দে, যায়নাব বিনতে আলী, আরাফাত ইসলাম, কাবিনা সুলতানা মায়া, ফাহমিদা ওয়াজিফা তানফিয়া, আবির হাসান, তামান্না আক্তার মিম ও অপর্না।

আসরে সুব্রত বড়ুয়া’র লেখা থেকে পাঠ করে শোনায় আনন ফাউন্ডেশনের ছোট্ট বন্ধু আবদুল্লাহ ইবনে আলী। আর মিসকাতুল মুনতাহা ঐশী পাঠ করে শোনায় শরীফ খান-এর লেখা থেকে।

পঠিত লেখার ওপর আলোচনা করতে গিয়ে সম্মানিত অতিথি সুজন বড়ুয়া বলেন, আমরা যারা শিশুদের নিয়ে কাজ করি তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য কাজ করছেন আনন ফাউন্ডেশনের সভাপতি শিশুসাহিত্যিক স.ম. শামসুল আলম। আমরা তাঁর কাছে কৃতজ্ঞ। তিনি বলেন, আপনি যে এলাকায় শিশুদের নিয়ে কাজ করছেন তা একদিন ইতিহাস হয়ে থাকবে। আমি আনন ফাউন্ডেশনের শিশুদের লেখা পাঠ শুনে আপ্লুত। ওদের লেখার মান দেখে সত্যিই মুগ্ধ। আমি আশা করছি ভবিষ্যতে এই শিশুরাই একদিন লেখক সমাজে নেতৃত্ব দেবে।


শরীফ খান বিশেষ অতিথির ভাষণে শিশুদের উদ্দেশ্যে বলেন, আমি আনন্দিত এই কারণে যে, তোমরা ভীষণ সাহসী। আমরা যখন লেখা পাঠ করতাম তখন আমরা ভয় পেতাম কিন্তু তোমরা পাওনি। কারণ, আমি মনে করি তোমরা যোগ্য নেতৃত্বে বেড়ে উঠছ। আমি আনন্দিত আনন ফাউন্ডেশনের শিশুদের উত্তরণ দেখে। তিনি আরও বলেন, তোমাদের চিন্তা ও মনোজগৎ খুবই উন্নত। আমি তোমাদের বলব তোমরা প্রকৃতির কাছে শিখবে, নদীর কাছ থেকে শিখবে, পাখির কাছ থেকে শিখবে। বড় কথা হলো, তোমরা যত বেশি শিখবে তোমাদের জীবন তত সমৃদ্ধ হবে আর তোমাদের লেখারও গুণগত মান বৃদ্ধি পাবে।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সুব্রত বড়ুয়া তাঁর ভাষণে বলেন, শিশুদের জন্য কাজ করছে আনন ফাউন্ডেশন। আমি শিশুদের দেখে মুগ্ধ। শিশুদের নিয়ে সবাই কাজ করতে পারে না। কিন্তু আমাদের ভাই স.ম. শামসুল আলম পেরেছে। এরও কারণ আছে। আমরা একসময় শিশুসংগঠন কচি-কাঁচার মেলা করতাম। আজ আমি শ্রদ্ধার সাথে দাদাভাইয়ের কথা স্মরণ করছি। প্রিয় শিশুরা তোমরা একটা কথা মনে রাখবে আমরা যে লেখালেখি করি, গান করি, নাচ করি, আবৃত্তি করি এই সকল কিছুই কিন্তু আমরা করি আমাদের জীবনের প্রয়োজনে। আননের শিশুদের দেখে মনে হচ্ছে ওরা সঠিক পথেই এগোচ্ছে। তোমরা বড়দের অনুসরণ করবে, তাঁদের আদর্শে জীবন পরিচালিত করবে তবেই জীবন সুন্দর হবে। আমি আশা করছি আনন ফাউন্ডেশনের শিশুরাও ভালো পথে চলবে, দেশকে ভালোবাসবে। তারা দেশের মঙ্গলের জন্য কাজ করবে।

অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে সভাপতি তাঁর বক্তব্যে সকলের সহযোগিতা কামনা করে ধন্যবাদ জ্ঞাপনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।
আসরটি উপস্থাপনায় ছিল ছোট্টবন্ধু সুখি আক্তার সাথী।

সর্বমোট পঠিত: 69

সর্বশেষ সম্পাদনা: জানুয়ারি ২৭, ২০১৯ at ১০:১৩ পূর্বাহ্ণ

প্রিজম আইটি: ওয়েবসাইট ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট-এর জন্য যোগাযোগ করুন- ০১৬৭৩৬৩৬৭৫৭